ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ২০০৮ সালে ১২ ডিসেম্বর ডিজিটাল বাংলাদেশ: রূপকল্প ২০২১-এর যুগান্তকারী ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে দেশব্যাপী তথ্যপ্রযুক্তি অবকাঠামো নির্মাণ, তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ মানবসম্পদ উন্নয়ন (ডিজিটাল সক্ষমতা উন্নয়ন), আইসিটিশিল্পের রপ্তানিমুখী বিকাশ এবং জনবান্ধব তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার (ই- গর্ভনেন্স) এই চারটি স্তম্ভকে ভিত্তি করে সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার অভিলক্ষ্যসহ তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধমে একটি স্বচ্ছ, দায়বদ্ধ ও জবাবদিহিমূলক সরকার প্রতিষ্ঠা এবং সরকারি ও বেসরকারি খাতের অংশীদারিত্বে সরকারি সেবাসমূহ জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছানোর লক্ষ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ নানামূখী কার্যক্রম বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে।

২০০৮ সালে ১২ ডিসেম্বরডিজিটাল বাংলাদেশ: রূপকল্প ২০২১-এর ঐতিহাসিক ঘোষণাকে স্মরণীয় এবং তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অর্জন ও তাৎপর্য জনগণের মাঝে উপস্থাপনের নিমিত্ত মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ১২ ডিসেম্বর দিনটিকেজাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস(National ICT Day) হিসেবে পালনের প্রজ্ঞাপন জারী করেন। সে মোতাবেক গত ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখ দেশব্যাপী ১ম বারের মত বর্ণাঢ্যভাবে জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস পালিত হয়। ২০১৮ সালে মন্ত্রিসভা বৈঠকে দিবসটির নতুন নামকরণ করা হয়ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস।

ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার

স্বাধীন্তার মহান স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর সুদৃঢ় নেতৃতে বাংলাদেশ ১৯৭২ সালে স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশ হিসেবে বিশ্বের মানচিত্রে স্বীকৃতি পায় এবং ১৯৭৩ সালে আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ইউনিয়িন (ITU)-এর সদস্য পদ লাভ করে। জাতির পিতার দিক নির্দেশনায় টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নের লক্ষ্যে ১৯৭৫ সালের ১৪ জুন পাবর্ত্য চট্টগ্রামের বেতবুনিয়ায় ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। ফলে সারাবিশ্বের সাথে সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের যোগাযোগের সুদূরপ্রসারী ভিত্তি রচনা হয়। তিনিই দেশে প্রথম তথ্যপ্রযুক্তির গোড়াপত্তন করেন।

ডিজিটাল বাংলাদেশের রুপকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালের ১২ ডিসেম্বর ডিজিটাল বাংলাদেশ রুপকল্প-২০২১ ঘোষণা করেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ রুপকল্প- ২০২১ আজ বাস্তবতা। এই ধারাবাহিকতায় জ্ঞানভিত্তিক অর্থনীতিতে রুপান্তরের মাধ্যমে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত- সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে আইসিটি বিভাগ ও আওতাধীন সংস্থাসমূহ দৃঢ় প্রত্যয়ে এগিয়ে যাচ্ছে এবং ইতোমধ্যে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করতেও সক্ষম হয়েছে। প্রতিবছর ১২ ডিসেম্বর তারিখে গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচি পালনের পাশাপাশি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ব্যক্তি, দল ও প্রতিষ্ঠানকে অনুপ্রেরণা, উৎসাহ ও উদ্দীপনা যোগানো এবং স্বীকৃতি প্রদানের জন্যডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার-এ ভূষিত করার লক্ষ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার নীতিমালা ২০২১ প্রণয়ন করা হয়েছে।